banner728x90

, প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে! প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে!! বিস্তারিত জানতে : ০১৭১২৪০৩৭৮০, ০১৭১১৬৬৬৭৫৫
জাতীয় | আন্তর্জাতিক | খেলাধুলা | বিনোদন | রাজনীতি | লাইফ স্টাইল | শিক্ষাঙ্গন | অর্থ বানিজ্য | আইন আদালত | আবহাওয়ার নিউজ | ইতিহাস | ইতিহাস ঐতিহ্য | এক্সক্লুসিভ নিউজ | কৃষি সংবাদ | চাকরির খবর | জনদুর্ভোগ | সারাদেশ | সাহিত্য সংস্কৃতি | স্মৃতিতে অম্লান | জীবন ও দর্শন | ঝালকাঠী | পিরোজপুর | বিজ্ঞান প্রযুক্তি | ভোলা

করোনা যোদ্ধা ও তাদের আত্মত্যাগ

আপডেট : May, 23, 2020, 6:29 pm

নিউজটি পড়া হয়েছে : 91 বার

মোঃ আখতারুজ্জামান তালুকদার:

আজ বাংলাদেশ তথা এ দেশের জনগণ সারা বিশ্বের সাথে তাল মিলিয়ে করোনা নামক যুদ্ধ মোকাবেলা করার জন্য শারীরিক, সামাজিক ও মানবিক ভাবে সরকার,সরকারী উর্দ্ধতন মহলের কর্তা ব্যক্তি,বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের নেতা কর্মী, সাধারণ জনগণসহ সকলেই প্রত্যক্ষ বা পরোক্ষ ভাবে যথেষ্ট সাহায্য সহযোগিতা করে করোনা অাক্রান্ত রোগী ও অসহায় মানুষদের ভাল রাখার প্রানান্ত চেষ্টা করে যাচ্ছেন।

 

অনেকেই তো মানব সেবাই নিজের মহামূল্যবান জীবন বাজি রেখেছেন ভয়াবহ সংক্রামক করোনা নামক এই যুদ্ধে রোগীর জীবন বাঁচাতে।

 

যেখানে এই সংক্রামক ব্যাধি থেকে বাঁচার জন্য ১৭ কোটি লোকের প্রায় সকলেই ঘরে বসে অাছে।ঘরে বসেই অনলাইনে সারছেন অফিসের দাপ্তরিক ও ব্যক্তিগত অনেক কাজ।

অামরা বাবা, মা,ভাই,বোন ও স্বামী,স্ত্রী এবং সন্তানদের নিয়ে লকডাউনের মধ্যে ঘরে বসে টিভি দেখে বা হইহুল্লোল করে কিছুটা হলেও স্বস্তিতে দিন কাটাচ্ছি।

 

অামার কথাই যদি বলি তাহলে, বলতে হয় অামার সাড়ে তিন বছরের এক মেয়ে।তারা অামাকে বাড়ীর বাহিরে বের হতে দিতে চায় না কোন এক অজানা ভয়ে।যদি প্রয়োজনে হাটতে যেতে চাই তাহলেও বলে তোমায় হাটতে হবেনা। বাহিরে ভাইরাস অাছে অাবার কখনও বলে জীবানু অাছে।তাহলে অামার ছোট সন্তান যদি অজানা ভয়ে বাবাকে বাহিরে যেতে নিষেধ করে।তাহলে ডাক্তার, নার্স ও তৎসংশ্লিষ্ট প্রত্যেক সন্তানই তার বাবা মাকে ভালবাসে।নিশ্চয় তাদেরকে ও কর্মক্ষেত্রে যেতে বাঁধা দেবার চেষ্টা করে।অথচ তাঁরা সেই বাঁধা হাত দিয়ে সড়িয়ে মানব সেবায় নিজেদের বিলিয়ে দিচ্ছেন।

 

তবে এক্ষেত্রে অনেকেই মনে মনে ভাবছেন যে এটা তাদের নৈতিক দায়িত্ব।মেনে নিলাম এটাইও ঠিক।

তাহলে এখন লক্ষ্য করে দেখুন অাপনার অাশেপাশে ব্যাঙের ছাতার মত কত ক্লিনিক,ডায়াগনস্টিক সেন্টার গড়ে উঠেছিল।তারা অাজ কোথায়, তাদের নৈতিকতা কোথায় গেল।

 

অামরা লক্ষ্য করে দেখেছি, সরকারী ও বেসরকারী নামীদামি ডাক্তারগণ প্রাইভেট প্রাকটিসের নামে সকাল হতে শুরু করে অনেকে মধ্যরাত অবধি রোগী দেখতেন উপযুক্ত নজরানা নিয়েই।

অাজ তাঁরা কোথায়?কোথায় গেল তাদের প্রাকটিস,কোথায় গেল তাদের নৈতিকতা।

 

অাবার অন্যদিকে বিপরীত চিত্র,সরকারী নির্দেশনা মেনে ডাক্তার,নার্স,বিভিন্ন মিডিয়া ব্যক্তি, বিভিন্ন দপ্তরের জনপ্রতিনিধিগণ এ সময় শরীর, হাত,মাথায় বিভিন্ন সুরক্ষা সামগ্রী পরে সচেতনভাবে দেশ ও দশের স্বার্থে মানব সেবায় নিজেদের নিয়োজিত রেখেছেন। তাঁরা নিঃসন্দেহে এই বৈশ্বিক মহামারির জাতীর বীর সেনা।এদের জানাই অন্তর হতে কৃতিমত্তা বর্জিত মনের ভালবাসা।

 

তবে সকলের মাঝে অন্যতম বলে একটি কথা অাছে।ইংরেজীতে যে শব্দটিকে বলা হয় Best।অার এজন্যই বলা যায় দেশে করোনায় সকলে প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষ ভাবে জড়িত থাকলে ও সকলের মাঝে অন্যতম ( Best) হলেন চিকিৎসা সেবায় নিয়োজিত চিকিৎসক বা ডাক্তার, নার্স বা সেবিকা।

 

এরাই এই মূহূর্তে জাতীর শ্রেষ্ঠ সন্তান।যারা সেচ্ছায় স্ত্রী সন্তানের বাহুডোর ছেড়ে বেছে নিয়েছেন হাসপাতালের নির্ঘোম জীবন।কাটাচ্ছেন সন্তানের ভালবাসা ছাড়া ভিন্ন এক একটা দিবা রাত্রি।

 

টাকা দিয়ে পৃথিবীর সব কিছু পাওয়া গেলেও অাল্লাহর দান করা জীবন পারবেন কি কিনতে পৃথিবীর দামে?

 

প্রতিটি মানুষের কাছেই সবার অাগে প্রিয় তার নিজের জীবন, তারপর বাবা-মা,সন্তান-সন্তুতি এবং তারপর অাত্বীয় স্বজনসহ অন্যরা।

 

অথচ সেই জীবনকেই বাজি রাখছেন অন্য এক মানুষের জীবন বাঁচানোর জন্য।সে  হয়তো নয় তাঁর কেউ কিন্ত সেও তো কারও বাবা,কারও মা, কারও ভাই বা বোন তাদেরও অাছে মায়া ভরা পৃথিবী।

 

বেঁচে থাকার মত অানন্দ অার কোথাও নেই।

একজন মানুষের বেঁচে থাকার মাঝেই বেঁচে থাকে তার পরিবার থাকে অনেক মানুষ।কেমনে বেঁচে থাকে তার ব্যাখ্যা দিতে গেলে অনেক কথায় বলতে হবে থাক তবে।

 

এই মহান মনের ব্যক্তিরা যারা একটি মানুষের জীবন শুধু নয়,একটি পরিবার ও একটি দেশের সম্পদকেই বাঁচিয়ে রাখছেন।

 

এরা জীবন দিতেও পিছপা হচ্ছেন না চিকিৎসা সেবা থেকে। হ্যাঁ অামি এতক্ষণ যে সব মহান মানুষ ও মানব সেবকদের কথা বলছি তাঁরা হলেন ডাক্তার ও নার্স বা সেবিকা।যাদের মধ্যে অাছেন অনেক সেচ্ছাসেবি চিকিৎসক ও নার্স।

 

ডাক্তারদের ভুমিকা অনস্বীকার্য হলেও নার্স বা সেবিকাদের ভুমিকাও কম নয়।এদের ভুমিকাও অনেক।

 

এই নার্সদের কে ফ্লোরেন্স নাইটিঙ্গেল অালোক বর্তিকা হিসেবে উল্লেখ করেছেন।অথাৎ অালোর দিশারী বলা হয় তাদের।অামার মনে হয় তাদের সম্পর্কে অার বলতে হবেনা।অামরা যারা ভুক্ত ভোগী তারা দেখেছি তাদের কর্ম।

 

ডাক্তার চিকিৎসা দিয়ে রোগীকে বাঁচানোর চেষ্টা তথা ভাল করার চেষ্টা করেন।অার অালোক বর্তিকারা অালো হাতে সারা দিন রাত্রি পালাক্রমে অাপনার সেবার জন্য রেডি থাকে।কখন কি ওষধ খেতে হবে,কিভাবে খেতে হবে, কখন কি ইনজেকশন লাগবে ইত্যাদি তদারকি করার জন্য।

 

অামি দেখেছি অনেক জায়গায় অনেকের ব্যবহার খারাপ লক্ষ্য করা যায়।এটা হাতে গোনা কয়েকটা।যেমন ধানের মধ্য পাতান বা চাল ছাড়া ধান থাকে তেমন।সেখানে কিন্তু ভাল ধানের সংখ্যাই বেশি।

 

অামি এসবের পাশাপাশি দেখেছি এই মহান সেবিকা অালোক বর্তিকারা ওষধ ছাড়াও ভাত মুখে তুলে খাইয়ে দেন,দেন সেবার সর্বোচ্চটা।

তাই চাই বেঁচে থাক তাঁরা, বেঁচে থাক মানবতা, বেঁচে যাক মানুষের প্রাণ।

 

অনকে চিকিৎসক করেনা অাক্রান্ত রোগীর চিকিৎসা করতে গিয়ে মৃত্য বরণ করেছেন।অামি মনে করি তারা শহীদের মর্যাদায় সন্মানিত হবেন।কারণ যুদ্ধে ক্ষেত্রে যুদ্ধ করতে কোন যোদ্ধা মারা গেলে তাকে শহীদ হিসেবে ঘোষণা করা হয়।যেহেতু এটিও একটি যুদ্ধক্ষেত্র সুতরাং তাঁরাও শহীদ।তাঁরা বেঁচে থাকুক লক্ষ কোটি মানুষের হৃদয়ে।

তাই তাদের জানাই লাল সালাম।

Share with your friends

এখানে মন্তব্য লিখুন ...

প্রধান সম্পাদক: টি এম এ হাসিব
প্রধান  নির্বাহী সম্পাদক: মোঃ সুমন ফরাজী
প্রকাশক: মোকলেসুর রাহমান মনি
বার্তা ভবন: লুকাস কম্পাউন্ড, সদর রোড, বরিশাল।
মোবাইল: ০১৭১২৪০৩৭৮০/ ০১৭১৭১৯৬৯৭৮
ইমেইল: banglarbaninews24@gmail.com

শিরোনাম :
★★ বঙ্গবন্ধু হত্যার পেছনে লক্ষ্য ছিল নব্য পাকিস্তান সৃষ্টি: আমু ★★ জয়পুরহাটে যথাযোগ্য মর্যাদায় জাতীয় শোক দিবস পালিত ★★ নলছিটিতে যথাযোগ্য মর্যাদায় জাতীয় শোক দিবস পালিত ★★ বানারীপাড়ায় বিভিন্ন কর্মসূচির মাধ্যমে বঙ্গবন্ধুর ৪৫ তম শাহাদাৎ বার্ষিকী পালন ★★ জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর মহাপ্রয়াণ দিবসে বরিশাল রেঞ্জ ডিআইজি’র শ্রদ্ধা ★★ বরিশালে ডিবি পুলিশের অভিযানে ইয়াবা সহ দুই মাদক ব্যবসায়ী আটক ★★ বরিশালে বঙ্গবন্ধুর শাহাদাত বার্ষিকীতে বিএমপি উত্তরের উদ্যোগে আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল ★★ শোক হোক নতুন প্রজন্মের শক্তি-এমপি শাহে আলম ★★ পাথরঘাটায় ৩টি হরিনের চামড়া উদ্ধার করেছে কোস্টগার্ড ★★ আমতলীতে জাতির জনকের শাহাদাত বার্ষিকী পালন